1. admin@dainikdeshkantho.com : admin : Humayun Kabir
শনিবার, ০৮ অক্টোবর ২০২২, ০৩:৪৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সালথায় জাতীয় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস পালন নোয়াখালীর কবিরহাটে কিশোরীকে ধর্ষণ আলফাডাঙ্গায় পুজা মন্ডপ পরিদর্শন করলেন জেলা প্রশাসক মধুখালী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার যোগদান মাদারীপুরে বিশ্ব শিক্ষক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান আনিসুর রহমানের জানাজা অনুষ্ঠিত যুক্তরাজ্য-যুক্তরাষ্ট্র সফর নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন বিকেলে চাটখিলে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে বিভিন্ন মেয়াদে ৩ জনের কারাদণ্ড নৌকা মনোনয়ন প্রত্যাশী মেয়র প্রার্থী শারদীয় দুর্গা পূজামন্ডপ পরিদর্শন পৌরসভা শারদীয় দুর্গোৎসবে পূজামন্ডপ পরিদর্শন ও শুভেচ্ছা বিনিময় করেন পৌর আওয়ামী সাধারণ সম্পাদক

আত্মহত্যা কখনো কোন সমাধান হতে পারে না

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
  • ৯৬ বার পঠিত

 

 

আত্মহত্যা…!!!

ইসলামে যেটা কে মহাপাপ বলা হয়েছে। সাধারণত আমরা বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় ও নিউজ টেলিভিশনে দেখে থাকি; মানুষ কোন সমস্যায় পড়লে তার সমাধান বের করতে না পারলে আত্মহত্যা করে বসে।
যেমন পরিবারের সংসারে অশান্তি হলে টাকা-পয়সার বিভিন্ন সংকটে থাকলে।পরীক্ষায় ভালো রেজাল্ট করতে না পারলে বা পরীক্ষায় ফেল করলে। ভালোবাসার প্রিয় মানুষটি কে না পেলে সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন হলে- ইত্যাদি ইত্যাদি।

যারা আত্মহত্যার মত জঘন্য কাজের সিদ্ধান্ত নেয়, তারা মনে করে আত্মহত্যায় সব সমস্যার সমাধান। কিন্তু তারা এটা কখনোই চিন্তা করে না যে, আত্মহত্যা কখনো কোনো সমস্যার সমাধান হতে পারে না। বরং আত্মহত্যা করলে সমস্যা আরও বেড়ে যায়। আত্মহত্যার পর কখনো সে জান্নাতে প্রবেশ করতে পারবে না। তার পরিবারে নেমে আসবে শুকের ছায়া। তাকে মানুষ কখনোই আর পছন্দ করবে না।

আত্মহত্যা করার ইচ্ছে হলে তাদের করনীয়: একটু হাসপাতাল কিংবা মসজিদ মন্দির থেকে ঘুরে আসুন। দেখবেন মানুষ বাঁচার জন্য কত লড়াই করছে, আর আপনি কিভাবে নিজের জীবনকে শেষ করে দিতে চাইছেন। আর পৃথিবীতে হাজারো সমস্যা থাকতে পারে, সেই হাজারো সমস্যার হাজারো সমাধানও আছে। ‘সুইসাইড/আত্নহত্যা’ কখনোই কোনো সমাধান নয়।আত্মহত্যার কথা বলা বা চেষ্টা করা কোন ছেলে খেলা নয়, অবশ্যই নিজের মাঝে এই প্রবনতা দেখা দিলে সাহায্য নিতে হবে। বিশ্বাসযোগ্য, নির্ভরযোগ্য ও উত্তম পরামর্শদাতার সাথে মনের কথা বলতে হবে।প্রয়োজনে অবশ্যই বিশেষজ্ঞের সাহায্য নিতে হবে। মন খুলে কথা বলেন। কাছের যে কারো সাথে সমস্যাগুলো শেয়ার করেন।
আর চিন্তা করে দেখেন। আপনি আজ পারিবারিক সাংসারিক সমস্যার জন্য আত্মহত্যা করেছেন। কিন্তু দেখবেন কিছুদিন পর আপনার পরিবার আপনার সংসার সবাই আপনাকে আস্তে আস্তে ভুলে যাবে। যেই সমস্যার জন্য আপনি আত্মহত্যা করছেন। সেই সমস্যার সমাধান টাও হয়তো একদিন হয়ে যাবে। কিন্তু সেই দিন আর আপনি থাকবেন না। পরীক্ষায় ভালো রেজাল্ট করতে পারেন নাই বা পরীক্ষায় ফেল করছেন। তাতে কি হয়েছে সামনে আরো ভালো করার চেষ্টা করেন আবার পরীক্ষা দিন। কিন্তু যদি আপনি আত্মহত্যা করেন তাহলে তো সব কিছুই শেষ। আপনার রেজাল্ট আর কখনো পরিবর্তন হবে না। আর আপনি আবার কখনো পরীক্ষা দেয়ার সুযোগ ও পাবেন না। তাহলে আত্বহত্যা কেন। প্রিয় মানুষটিকে হারিয়ে ফেলছেন সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে তাই আপনি আত্মহত্যা করছেন। কিন্তু কি লাভ কিছুদিন কিছু মাস পর আপনার প্রিয় মানুষটা আপনার সম্পর্ক সব কিছু ভুলে, নতুন করে আবার অন্য কারো সাথে সম্পর্কে জড়াবে। অন্য কারো সাথে সুখে থাকবে। আপনাকে আপনার সব কিছু ভুলে যাবে।তাহলে আত্বহত্যা কেন।

দেখিয়ে দিন আপনি পারেন। আপনি পারবেন জীবন যুদ্ধের ময়দান ছেড়ে আপনি যাবেন না। জীবনে যুদ্ধ করে লড়াই করে বেঁচে থাকবেন। আত্মহত্যা নয়। বরং যে সমস্যায় আপনি পড়েছেন তার সমাধান বের করতে চেষ্টা করুন। সৃষ্টিকর্তার উপর ভরসা রাখুন। দেখবেন সৃষ্টিকর্তা কখনোই আপনাকে নিরাশ করবে না।
যে আপনাকে সৃষ্টি করেছে সেই আপনাকে বাঁচিয়ে রাখবে। তাহলে আপনি কেন আপনার নিজের জীবনকে শেষ করে দিতে চাইছেন। তাই আসুন আমরা সবাই আত্মহত্যা কে
না বলি। নিজের জীবনকে সুন্দরভাবে গড়ে তুলি।

গবেষণায় প্রকাশ পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, ২০১৬ সালে আত্মহত্যা করেছিল ৮১৭,১৪৮ জন। অপরদিকে, সন্ত্রাস ও অন্যান্য কারণে মৃতের সংখ্যা ছিল ৩৯০,৭৯৪ জন। বিশ্ব জুড়ে আত্মহত্যার সংখ্যাতে যথেষ্ট ভিন্নতা রয়েছে। ভারত, ইউকে, ইউএসের মত দেশগুলিতে আত্মহত্যার প্রবণতা চোখে পড়ার মত।

২০১৫ সালের ‘ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরো’র(এনসিআরবি) রির্পোট অনুযায়ী, ভারতে ১.৩৩ লক্ষ মানুষ আত্মহত্যা করেছিল। যাদের মধ্যে মহিলাই ছিলেন ৪২,০৮৮ জন।

২০১৬ সালে প্রায় ৪৫ হাজার আমেরিকান আত্নহত্যা করেছেন। সব বয়সের নারী পুরুষের মধ্যেই আত্নহত্যার হার বেড়েছে বলে গবেষণায় জানা যায়।

দেশে দেশে আত্মহত্যার কারণ বিশ্লেষণ করে জানা যায়, শুধুমাত্র মানসিক দুশ্চিন্তাই আত্মহত্যার একমাত্র কারণ নয়। এর পিছনে কাজ করে অর্থনৈতিক অবস্থার পরিণতি এবং জীবনধারণের অবনতির সুযোগ। তবে কারণ যাই হোক না কেন আত্মহত্যা কোনো সমস্যার সমাধান নয়।

সরোয়ার উদ্দিন নিরব রিমন,
সদস্য- বাংলাদেশ তরুণ কলাম লেখক ফোরাম ও শিক্ষার্থী- চট্টগ্রাম টি.এম কলেজ, সীতাকুন্ড, চট্টগ্রাম

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © ২০২২ স্বাধীন বার্তা ৭১
Theme Customized By Theme Park BD