1. admin@dainikdeshkantho.com : admin : Humayun Kabir
মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১০:০৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
চাটখিল পৌরসভা ও খিলপাড়া হিন্দু সম্প্রদায়ের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণ করেন- জাহাঙ্গীর আলম মাদারীপুরে নেশা দ্রব্য খাইয়ে শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ মধুখালীতে জাতীয় কন্যা শিশু দিবস উপলক্ষ্যে র‍্যালী ও আলোচনা সভা নিকলীতে জাতীয় কন্যা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত চীন এখনই তাইওয়ানে হামলা করবে না: মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ফরিদপুরে জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী অফিসার নির্বাচিত হলেন মোঃ আশিকুর রহমান চৌধুরী মধুখালীতে গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন বিএসএফআইসি চেয়ারম্যানের ফরিদপুর চিনিকলে আখরোপন কার্যক্রমে অংশগ্রহণ ও মত বিনিময় সভা আলফাডাঙ্গায় জাতীয় উৎপাদনশীলতা দিবস পালিত কানাইপুরে বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন ও কুশল বিনিময় করলেন ইউপি চেয়ারম্যান

পুলিশের সহায়তায় ১৯ দিন পর আলিফ ফিরে পেল তার মা বাবা কে

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১২ মে, ২০২২
  • ৪১ বার পঠিত

 

শফিকুল ইসলাম সাগর, গাইবান্ধা প্রতিনিধি:

 

আলিফ নওগাঁ জেলার সদর উপজেলার খাস নওগাঁ গ্রামের কাঠ মিস্ত্রী মতিউর রহমান ও মা ছালমা বেগমের ২য় সন্তান। আলিফ বাড়ী থেকে পথ ভুলে চলে আসে গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে সেখানে রাব্বী নামক এক ব্যক্তির কাছে ৭ দিন থেকে সেখান থেকে চলে আসে সাদুল্যাপুরের একবারপুর জয়নালের নিকট, জয়নাল তাকে মহাসড়কের পাশ থেকে বাড়ী নিয়ে যায়। জয়নালের কাছে ৮ দিন থাকার পর পিতা মাতার সন্ধান না পেয়ে জয়নাল তাকে ধাপেরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে হস্তান্তর করেন। ধাপেরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের চৌকস ও সুদক্ষ ইনচার্জ সেরাজুল হক, অবুঝ শিশু আলিফ কে, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলামের ছোট ভাই স্হানীয় শ্রমিক নেতা নজরুল ইসলামের জিম্মায় দেন এবং মিডিয়ার লোকজন ডেকে ব্যাপক প্রচারের উদ্যোগ গ্রহন করলে, একাধিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলিফের ছবি ভাইরাল হয়ে যায়। এক পর্যায়ে ১৯ দিন পর ফেসবুকে আলিফের ছবি দেখে তার মা ও বাবা ১২ মে বৃহস্পতিবার ১০০ কিঃমিঃ দুর, নওগাঁ থেকে গাইবান্ধার ধাপেরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে ছুটে আসে এবং তাদের সন্তান কে সনাক্ত করে ইনচার্জ সেরাজুল হকের কাছ থেকে আলিফ কে বুঝে নেন। এ সময় যাদের কাছে এই ১৯ দিন আলিফ ছিল, সেই রাব্বী,জয়নাল এবং নজরুল উপস্হিত ছিলেন। মায়া খুবই কষ্টদায়ক,অল্প সময়ে আলিফকে আশ্রয়দাতাদের বাবা ডেকে মন জয় করে অন্তরে স্হান করে নিয়েছেন। প্রকৃত বাবা মা’র হাতে আলিফ কে তুলে দিতে গিয়ে সবাই আবেগে নয়নে অশ্রু চলে আসে। এমন মহৎ কাজের জন্য আবারো ধন্যবাদ ইনচার্জ সেরাজুল ভাইকে। পোস্টদাতা ও শেয়ার কারি সবাইকে ধন্যবাদ যারা আলিফকে তার প্রকৃত মা বাবা কে খুজে পেতে সহযোগিতা করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © ২০২২ স্বাধীন বার্তা ৭১
Theme Customized By Theme Park BD