1. admin@dainikdeshkantho.com : admin : Humayun Kabir
শনিবার, ০৮ অক্টোবর ২০২২, ০৫:০৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সালথায় জাতীয় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস পালন নোয়াখালীর কবিরহাটে কিশোরীকে ধর্ষণ আলফাডাঙ্গায় পুজা মন্ডপ পরিদর্শন করলেন জেলা প্রশাসক মধুখালী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার যোগদান মাদারীপুরে বিশ্ব শিক্ষক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান আনিসুর রহমানের জানাজা অনুষ্ঠিত যুক্তরাজ্য-যুক্তরাষ্ট্র সফর নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন বিকেলে চাটখিলে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে বিভিন্ন মেয়াদে ৩ জনের কারাদণ্ড নৌকা মনোনয়ন প্রত্যাশী মেয়র প্রার্থী শারদীয় দুর্গা পূজামন্ডপ পরিদর্শন পৌরসভা শারদীয় দুর্গোৎসবে পূজামন্ডপ পরিদর্শন ও শুভেচ্ছা বিনিময় করেন পৌর আওয়ামী সাধারণ সম্পাদক

বোয়ালমারীতে অবৈধ ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলন হুমকিতে কৃষি জমি

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২ জুন, ২০২২
  • ৩৯ বার পঠিত

 

আরিফুজ্জামান চাকলাদার আপেল, আলফাডাঙ্গা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি:

 

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার ঘোষপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইমারান হোসেন নবাবের নাম ভাঙ্গিয়ে অবৈধ ড্রেজার মেশিন দিয়ে নিজের বিশাল পুকুর পূনর্খননের কাজ করছে একই ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের মো. রফিকুল ইসলাম। তিনি দুইমাস মেয়াদী চুক্তিবদ্ধ করেছেন মধুখালীর ড্রেজার ব্যবসায়ী সুমন শেখের সঙ্গে। আর উত্তোলনকৃত বালু তারা মোটা অর্থের বিনিময়ে সরবরাহ করছেন এলাকার বিভিন্ন ব্যক্তি ও পরিবারের ভরাট কাজে। ড্রেজার দিয়ে দীর্ঘ দিন ভূগর্ভ থেকে বালু উত্তোলনের ফলে আশপাশের কৃষি জমি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কায় সংশ্লিষ্ট জমির মালিকদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে বলে একাধিক সূত্রে জানা গেছে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়,প্রায় এক সপ্তাহ ধরে রফিকুল ইসলামের পুকুরে ড্রেজার দিয়ে বালু তোলার কাজ চলছে। লম্বা পাইপ যোগে বালু নেয়া হচ্ছে প্রায় দেড় কিলোমিটার দূরে খামারপাড়া গ্রামের আ.গাফফার শেখের পুকুরে। তিনি স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ইমরান হোসেন নবাবের আপন বড় ভাই বলে জানা গেছে। পুকুর ভরাটে আ. গাফফার ড্রেজার মালিকের সঙ্গে চার লক্ষ টাকায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন বলে জানায়। এ বিষয়ে জানতে চাইলে পুকুর খননকারী রফিকুল ইসলাম বলেন,চেয়ারম্যান নবাব সাহেবের সঙ্গে আলোচনা করেই পুকুরে ড্রেজার বসিয়েছি। বালুও যাচ্ছে তার ভাইয়ের পুকুরে। সব কিছুর দায়-দায়িত্ব চেয়ারম্যানের উপর।পুকুর খনন কাজ শেষ হতে মাস-দুয়েক লাগতে পারে বলে জানান রফিকুল ইসলাম।

 

ড্রেজার মালিক সুমন শেখ বলেন,বর্তমানে ড্রেজারের মালিক রফিকুল ইসলাম ও চেয়ারম্যান সাহেব। আমি শ্রমিক হিসাবে কাজ করছি মাত্র। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকার কয়েকজন কৃষক বলেন,চলমান খননকৃত পুকুরটির চার পাশেই কৃষি জমি। দুই মাস ধরে ড্রেজার দিয়ে বালু তুললে এসব জমি পুকুরে বিলীন হয়ে যাবের আশঙ্কা রয়েছে ।এ কাজে চেয়ারম্যান সম্পৃক্ত আছে বলে আমরা মুখ খুলতে পারছি না। জানতে চাইলে চেয়ারম্যান ইমরান হোসেন নবাব বলেন,ড্রেজারের সাথে সম্পৃক্তরা আমার আত্মীয়-স্বজন। তারা তো নিজেদের জায়গা থেকে বালু তুলে নিজেদের জায়গায় ফেলছে। এতে ক্ষতির কি আছে?তিনি সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে বলেন,ড্রেজার অবৈধ কে বলেছে? যদি সেটা অবৈধই হয় তাহলে প্রশাসন এসে ভেঙ্গে দিক। এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মারিয়া হক সাংবাদিকদের বলেন, এ ব্যাপারে কেউ কোন অভিযোগ করেনি। খোঁজ-খবর নিয়ে সত্যতা পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © ২০২২ স্বাধীন বার্তা ৭১
Theme Customized By Theme Park BD