1. admin@dainikdeshkantho.com : admin : Humayun Kabir
শনিবার, ০৮ অক্টোবর ২০২২, ০৪:০৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সালথায় জাতীয় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস পালন নোয়াখালীর কবিরহাটে কিশোরীকে ধর্ষণ আলফাডাঙ্গায় পুজা মন্ডপ পরিদর্শন করলেন জেলা প্রশাসক মধুখালী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার যোগদান মাদারীপুরে বিশ্ব শিক্ষক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান আনিসুর রহমানের জানাজা অনুষ্ঠিত যুক্তরাজ্য-যুক্তরাষ্ট্র সফর নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন বিকেলে চাটখিলে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে বিভিন্ন মেয়াদে ৩ জনের কারাদণ্ড নৌকা মনোনয়ন প্রত্যাশী মেয়র প্রার্থী শারদীয় দুর্গা পূজামন্ডপ পরিদর্শন পৌরসভা শারদীয় দুর্গোৎসবে পূজামন্ডপ পরিদর্শন ও শুভেচ্ছা বিনিময় করেন পৌর আওয়ামী সাধারণ সম্পাদক

নিকলীতে উপজেলা পর্যায়ে প্রকল্প সমাপনী ও শিখন বিনিময় সভা

  • আপডেট সময় : সোমবার, ৬ জুন, ২০২২
  • ৫৮ বার পঠিত

 

মোঃ হাবিব মিয়া, কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি:

 

কিশোরগঞ্জ নিকলীতে উপজেলা পর্যায়ে প্রকল্প সমাপনী ও শিখন বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (৬ জুন) দুপুর ২ টায় নিকলী উপজেলা পরিষদ কনফারেন্স রুমে অক্সফ্যাম সহযোগিতায়, পপি রিকল-২০২১ (সাপোর্ট টু ডেভেলপমেন্ট) প্রজেক্ট আয়োজনে অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

  • উক্ত অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন নিকলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আবু হাসান। সঞ্চালনায় ছিলেন পপি রিকল-২০২১ প্রকল্প সমন্বয়কারী মোঃ ফেরদৌস আলম।
    এসময় উপস্থিত ছিলেন নিকলী উপজেলা ছাত্র ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ শামসুজ্জামান খান চৌধুরী। নিকলী উপজেলা জনস্বাস্থ্য অফিসার মোঃ শফিকুল ইসলাম, নিকলী উপজেলা প্রাণিসম্পদ উপ-সহকারী কর্মকর্তা মোঃ মকবুল হোসেন ভূঁইয়া, নিকলী উপজেলা পপি সমন্বয়কারী কর্মকর্তা মোঃজহিরুল ইসলাম, পপি রিকল-২০২১ প্রকল্পের কর্মকর্তা রতন কুমার দাস, উপজেলা পপি সমন্বয়কারী মোহাম্মদ সাকা উদ্দিন,
    সাংবাদিক জয়দেব আচার্য, সাংবাদিক মোঃ হাবিব মিয়া, সমীর চন্দ আদিত্য, মোছাম্মদ আয়েশা সিদ্দিকা,ছাতিরচর ও গুরই ইউনিয়নে সিপিও সদস্যবৃন্দ প্রমুখ।

পপি রিকল প্রকল্পটি নিকলী ও মিঠামইন উপজেলায় ২০১০ সাল থেকে দরিদ্র মানুষের জীবনমান উন্নয়নের জন্য দাতা সংস্থা অক্সফ্যাম ইন বাংলাদেশের আর্থিক সহযোগিতায় কাজ করে আসছে।
প্রকল্পটি নিকলী উপজেলার ছাতিরচর ও গুরই ইউনিয়ন এবং মিঠামইন উপজেলার সদর এবং ঘাগড়া ইউনিয়নে কার্যক্রম বাস্তবায়ন করে আসছে।
হাওড় অঞলের প্রকল্পটির কার্যক্রমের ফলে কর্ম এলাকায় উপকারভোগীদের জীবযাত্রার মান অনেকটা পরিবর্তন হয়ে আসছে। প্রকল্পটি আগামি ৩০ জুন ২০২২ তারিখে সমাপ্ত হবে।
প্রকল্পটি থেকে যে সমস্ত সহায়তা প্রদান করা হয়েছে, সেগুলোর মধ্যে অন্যতম হল, ৬৪ জন নারী সভাপতি, সেক্রেটারি, ক্যাশিয়ার ও ৮ জন নারী ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়।

১৯৭ জন অর্থনৈতিক সক্ষমতায় সচেতনতায় বৃদ্ধির ৮০%, দক্ষতা উন্নয়ন ২৫৫ জন।
সামাজিক ক্ষমতায়ন (জয়িতা পুরস্কারপ্রাপ্ত ২ জন), পারিবারিক ল্যাটিন প্রদান ১৮৯টি, নলকূপ ৪৮টি, নারীদের গোসলখানা ১৫টি, স্যানিটেশন সেন্টার ২টি, হাইজিন সেন্টার ২টি, সচেতনতামূলক কাজ, প্রশিক্ষণ, উঠান বৈঠক, ব্যক্তিগত যোগাযোগ, হাঁস পালন প্রশিক্ষণ ও হাঁস প্রদান ১৬৮ জন, গরু পালন প্রশিক্ষণ ও গরু প্রদান ৯৪ জন, মুরগী পালন প্রশিক্ষণ ও মুরগী প্রদান ১৫ জন, ১০টি সংগঠনকে স্থায়িত্বশীল তহবিলকে ৯ লক্ষ টাকা প্রদান করেন, ফুড ব্যাংক সহায়তায় ২ লক্ষ ৯৪ হাজার টাকা, ভোকেশন ট্রেনিং ৮৫ জন কম্পিউটার, প্রতিবন্ধী সহায়ক উপকরণ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © ২০২২ স্বাধীন বার্তা ৭১
Theme Customized By Theme Park BD