1. admin@dainikdeshkantho.com : admin : Humayun Kabir
বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:৫৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সাংবাদিক নেতা খোরশেদ আলম শিকদারের শোক সভা ও দোয়া মোনাজাত নোয়াখালীর হাতিয়াতে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুপক্ষের সংঘর্ষে নিহত-২, গ্রেফতার-৫ নাগরপুর উপ‌জেলা প্রশাস‌নের সংবর্ধনা ও ভালবাসায় সিক্ত বিশ্বজয়ী হাফেজ তাকরীম ফরিদপুর-২ আসনের উপনির্বাচনে মনোনয়ন সংগ্রহ করলেন মেজর (অব:) আতমা হালিম সালথায় প্রাথমিকের প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ বলিভিয়ার রাষ্ট্রপতির নিকট পরিচয়পত্র পেশ করলেন রাষ্ট্রদূত সাদিয়া ফয়জুননেসা আলফাডাঙ্গায় আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস পালিত ফুলপুরে আওয়ামী লীগের অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রীর ৭৬ তম জন্মদিন পালিত জননেত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে মধুখালীতে আনন্দ র‍্যালী ও আলোচনা সভা মধুখালীতে ইউনিয়ন পরিষদের দায়ীত্ব ও কর্তব্য বিষয়ক অবহিতকরণ কর্মশালা

চাটখিলে বিএনপির বর্ষিয়ান নেতা মরহুম মুহাম্মদ আলীর মৃত্যু বার্ষিকীপালিত

  • আপডেট সময় : বুধবার, ২৯ জুন, ২০২২
  • ৬০ বার পঠিত

 

মোঃ বেল্লাল হোসেন নাঈম, নোয়াখালী প্রতিনিধি:

 

নোয়াখালীর চাটখিল পৌরসভার বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মুহাম্মদ আলী তরফদারের ১১তম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত হয়।

বুধবার (২৯জুন) প্রতি বছরের ন্যায় রাজনৈতিক ও পারিবারিক ভাবে মরহুমের নিজ বাড়িতেও বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান দোয়া আয়োজন এবং এলাকায় হত-দরিদ্রদের মাঝে আর্থিক সহযোগীতার মাধ্যমে পালিত হয়েছে বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ মুহাম্মদ আলীর মৃত্যু বার্ষিকী।

উল্লেখ্য যে, ১৯৪০ সালে নোয়াখালী জেলার চাটখিল বাজারের নিকটস্থ তপদার বাড়ীর এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহন করেন তিনি। ব্যক্তিগত জীবনে ২ছেলে এবং ৪ মেয়ের জনক তিনি ।
তার দুই ছেলে, বড় ছেলে মোঃ মহিন উদ্দিন তপাদার রাজনীতিবিদ ও ব্যবসায়ী ও ছোট ছেলে মোঃ আলা উদ্দিন দৈনিক আলোকিত নোয়াখালী পত্রিকার সম্পাদক প্রকাশক।
১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় কিশোরগঞ্জ জেলায় থাকা কালীন মুক্তিযুদ্ধাদের সহায়তা করার কারণে আল-বদর-রাজাকার বাহিনী তার দোকান পুড়িয়ে দেয়। তখন থেকে তার জীবন সংগ্রাম শুরু হয়। যুদ্ধের পরে তৎকালীন রামগঞ্জ থানায় থাকা কালীন সর্ব প্রথম ১৯৮০ সালে ১৭নং পাঁচগাঁও ইউনিয়ন যুবদল সভাপতি নির্বাচিত হন। ১৯৮৩ সালে ১৭নং পাঁচগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের বিএনপি এর সভাপতি নির্বাচিত হন। তিনি ২৮ বছর যাবৎ চাটখিল বাজারের বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী হিসাবে সুনাম অর্জন করেন। ১৯৯০ সালে বাজার কমিটির নির্বাচনে সেক্রেটারী পদে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়ে একটানা ৯ বৎসর বাজার পরিচালনা করেন এবং তখন জেলা প্রশাসক (ডিসি) পদাধিকার বলে ঐ কমিটির সভাপতি ছিলেন। ১৯৯১ সালের পরে চাটখিল থানা বিএনপি এর দপ্তর সম্পাদক নির্বাচিত হন। ১৯৯২ সালে ৬নং পাঁচগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ বিএনপি এর সভাপতি নির্বাচিত হন এবং থানা বিএনপির দপ্তর সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৫ সালে তৎকালীন মাননীয় সাংসদ চাটখিল পৌরসভা প্রতিষ্ঠা করার পর তাকে প্রাথমিক ভাবে পৌর সভাপতি হিসাবে নির্বচিত করেন এবং প্রতিষ্ঠাতা পৌর সভাপতি হিসাবে কিছু দিন দায়িত্ব পালন করেন । ১৯৯৫ সালে চাটখিল মহিলা মহাবিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ভাইস চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৬ সালে পুণরায় পৌরসভা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটিতে তাকে আহ্বায়ক হিসাবে নির্বাচিত করেন। ১৯৯৯ সালে চাটখিল মহিলা মহাবিদ্যালয়ের গভের্নিং বডির নির্বাচনে জয় লাভ করেন। ২০০২ সালে পৌরসভা বিএনপির পূর্নাঙ্গ কমিটিতে সভাপতি পদে নির্বাচিত হন। ২০০৩ সালে নোয়াখালী জেলা বিএনপির সদস্য পদে নির্বাচিত হন । একই বছর ২০০৩ সালে নোয়াখালী জেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির সদস্য হিসাবে নির্বাচিত হন। ২০০৪ সালে তিনি চাটখিল পৌরসভার চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন । সর্বশেষ ২০০৬ সালে দলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পুণরায় তাকে পৌর-সভাপতি হিসাবে নির্বাচিত করা হয়, এছাড়াও চাটখিল বড় মসজিদ ও মাদ্রাসা সহ অসংখ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দায়িত্ব পালন করেন তিনি ।
২০০৭ সালের ৭ই মার্চ তৎকালীন তত্বাবদায়ক সরকারের প্রধান ফখরুদ্দিন-মইনুদ্দীন আহম্মদ এর আমলে তাকে বিনা মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে বিভিন্ন ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে শারীরিক ভাবে নির্যাতন করা হয়।
জেল থেকে মুক্তি পাওয়ার পর এই গুণী রাজনীতিবিদ ২০১১ সালের জুন মাসের ২৯ তারিখে তার নিজ বাড়িতে মৃত্যু বরণ করেন।

চাটখিল উপজেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাহজাহান রানা বলেন মরহুম মুহাম্মদ আলী তরফদার ছিলেন নিঃসন্দেহে একজন ভালো মানুষ সংগঠক রাজনীতিবিদ। আল্লাহ উনাকে জান্নাতের উচ্চ মোকাম দান করুক।

নোয়াখালী জেলা বিএনপির সদস্য ও জেলা যুবদলের সহ-সভাপতি এবং চাটখিল উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব পদপ্রার্থী মোঃ আনিছ আহমেদ হানিফ বলেন ২০০৬সালে মইনুদ্দিন ফখরুদ্দিন সরকারের সময় তাকে অন্যায় ভাবে আটক করে অমানুষিক অত্যাচার নির্যাতন করে বিএনপির জেলা ও কেন্দ্রীয় বিএনপির নেতাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা সাক্ষ্য দিতে কিন্তু তিনি রাজি না হওয়া মিথ্যা মামলা দিয়ে জেলে পাঠানো হয়েছে। মরহুম মুহাম্মদ আলী তরফদারের রুহের মাগফিরাত কামনা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © ২০২২ স্বাধীন বার্তা ৭১
Theme Customized By Theme Park BD